অপরাধীর পেছনে ছুটে চলা প্রতিনিয়ত, শ্বাসরুদ্ধকর সব অভিযানে জেলা গোয়েন্দা শাখা

Chapai Chapai

Tribune

প্রকাশিত: ৫:৫৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০২০

এসআই জাহিদ:অপরাধের পিছনে ছুটে চলা। আমার গহীন আমবাগানে শ্বাসরুদ্ধকর অভিযান।
এভাবেই চলছে জীবন,আমি পুলিশ।

গতকাল সন্ধার পর চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদের পাশ্ববর্তী মুসলিমপুর আমবাগানের ভিতর দিয়ে মাদক যাবে। উক্তরূপ তথ্যের ভিত্তিতে আমবাগানে অবস্থান করি আমরা টিম ডিবি। গহীন আমবাগানে অন্ধকারে আমরা কেউ গাছে নিচে মাটিতে বসা কেউ আম গাছের ডালে বসা। কথা বলা যাবে না ও আলো জ্বালানো যাবে না।বাগানে রাতে সামান্য আলো বা শব্দ অনেক দূর চলে যায়। বৃষ্টির কারনে বাগানে কাদা মাটি। সন্ধা পার হয়ে রাত গভীর হতে থাকে। সাপ-পোকার ভয়ও বাড়তে থাকে, সাথে মশার কামড় চলছে অনবরত। প্রায় পাঁচ ঘন্টা পর অনুমান ১২ঃ০০ ঘটিকার দিকে চার/পাঁচ জন বড় বড় দা ( স্হানীয় ভাষায় কাতা) হাতে বাগানের মধ্যে দিয়ে আসতে থাকে, একজনের মাথায় বস্তা। প্রথমে দেখে বাধা দিলে আমাদের আঘাত করার চেষ্টা করে, তখন আমরা বাঁশি দিলে ও পুলিশ বলে চিৎকার দিলে লোকালয় বিহীন গহীন বাগানে দৌড়াদৌড়ি ও হৈচৈ শুরু হয়। আমরা ১৩০ বোতল ফেন্সিডিলসহ একজনকে আটক করতে সক্ষম হই। আমাদের তিনজন পানিতে পড়ে পুরা শরীর ভিজে যায়।

গহীন বাগানে হঠাৎ হৈচৈ শুনে বাগানে ভিতরে এক পার্শ্বে থাকা গ্রামের ২০/২৫ জন লোক ডাকাত মনে করে দা-লাটি নিয়ে দৌড়ে আমাদের দিকে আসে।চিৎকার দিয়ে বলি আমরা চাঁপাই ডিবি। আমি এসআই জাহিদ। আল্লাহ রহমত তাদের মধ্যে অনেকেই আমাকে নামে চিনে, তারা তখন আমাদের আন্তরিক ভাবে সহযোগিতা করে।

রাত দুইটায় বাসায় এসে দেখি দুই প্রিয় সন্তান অপেক্ষা করতে করতে প্রতিদিনের ন্যায় ঘুমে। এভাবেই চলে আমাদের দিনগুলি। তবুও নেশা ছুটে চলা অপরাধের পিছনে। আল্লাহ সহায়।

লেখা:
এস আই জাহিদ
জেলা গোয়েন্দা শাখা চাঁপাই নবাবগঞ্জ।।

পোস্টটি শেয়ার করুন