বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২৩ অনুষ্ঠিত

Chapai Chapai

Tribune

প্রকাশিত: ১:০৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২২, ২০২৩

ট্রিবিউন ডেস্ক: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসকে স্মরণীয় করে রাখতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সার্বিক তত্ত্বাবধানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২৩ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) তৃতীয়বারের মতো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হয়। এবারের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন এর মূল লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মরণে বাঙালি জাতিসত্তা, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে বর্হিবিশ্বের সামনে উপস্থাপন ও যুবসমাজকে স্বাস্থ্যসম্মত জীবনধারায় উদ্বুদ্ধ করা।

এই ম্যারাথনের প্রধান পৃষ্ঠপোষকতা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও প্রধান উপদেষ্টা সেনাপ্রধান জেনারেল এসএম শফিউদ্দিন আহমেদ। ভোর সাড়ে পাঁচটায় ম্যারাথনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, জাতির জনকের নামে এমন একটি আয়োজন আমাদের জন্য গর্বের। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে এমন একটি আয়োজন সুশৃঙ্খল ও সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আমি আয়োজকদের আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

ম্যারাথন কমিটির প্রধান উপদেষ্টা সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ সমাপনী বক্তব্যের শুরুতেই বাংলাদেশের স্বাধীনতার মহান স্থপতি এবং সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। একইসঙ্গে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২৩ আয়োজন এবং দেশকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২৩ বাংলাদেশের সর্বস্তরের জনসাধারণের মাঝে সামাজিক এবং স্বাস্থ্য সচেতনতা সৃষ্টি করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এসময় তিনি প্রতিবছর জানুয়ারি মাসে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের স্মরণে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন আয়োজনের ব্যাপারে দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন। পরিশেষে তিনি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২৩ এ অংশগ্রহণকারী সব দেশি ও বিদেশি অংশগ্রহণকারী অ্যাথলেটরা ও এই আয়োজনকে সাফল্যমন্ডিত করার পেছনে সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

ম্যারাথন শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথনের প্রধান উপদেষ্টা সেনাপ্রধান, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের পুরস্কার বিতরণ করেন। এসময় ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তারা, অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনের কর্মকর্তাগণ, বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের কর্মকর্তাগণ, বিভিন্ন স্পন্সররা, গণমাধ্যম ব্যক্তিবর্গ এবং ম্যারাথনে অংশগ্রহণকারী দৌঁড়বিদগণ উপস্থিত ছিলেন।

ম্যারাথন-২০২৩ বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টার হতে শুরু হয়ে ৩০০ ফিট রাস্তা দিয়ে কাঞ্চন ব্রিজ এর পূর্ব পর্যন্ত অতিক্রম করে ও একই রাস্তায় ফেরত এসে বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে শেষ হয়। ফুল ম্যারাথনে এলিট দৌঁড়বিদদের মধ্যে পুরুষ বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হন কেনিয়ার স্ট্যানলি কিপ্রোটিস বেট এবং মহিলা বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হন ইথিওপিয়ার বাসাঙ্কি ইমোসি বিলো।

ফুল ম্যারাথন ও হাফ ম্যারাথনে সর্বমোট ২১৬৩ জন দৌঁড়বিদ অংশগ্রহণ করেন। ম্যারাথনে অংশগ্রহণকারী এলিট দৌঁড়বিদদের মধ্যে ফুল এবং হাফ ম্যারাথনে ২১ জন পুরুষ ও ১৭ জন মহিলা অংশগ্রহণ করেন।

এছাড়া, সাফ দৌঁড়বিদদের মধ্যে ফুল এবং হাফ ম্যারাথনে ২৩ জন পুরুষ ও ২০ জন মহিলা অংশগ্রহণ করেন। এই ম্যারাথনে কেনিয়া, ইথিওপিয়া, মরক্কো, ইউক্রেন, রুয়ান্ডা, লিথুনিয়া ও উগান্ডা থেকে ৩৮ জন এলিট দৌঁড়বিদ ও ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেপাল ও মালদ্বীপ থেকে ৪৩ জন সাফ দৌঁড়বিদ অংশগ্রহণ করেন। পাশাপাশি, বাংলাদেশ হতে ফুল ম্যারাথনে ৫৩২ জন এবং হাফ ম্যারাথনে এক হাজার ৫৫০ জন দৌঁড়বিদ অংশগ্রহণ করেন। তাছাড়া, এই ম্যারাথনে যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, জার্মানি, চীন, জাপান, নেদারল্যান্ডস ও নরওয়ের দৌঁড়বিদরাও অংশগ্রহণ করেন।

পোস্টটি শেয়ার করুন