২০ দিনে ১৪ হাজার কোটি টাকার রেমিট্যান্স

Chapai Chapai

Tribune

প্রকাশিত: ৬:৪৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৩, ২০২৩

ট্রিবিউন ডেস্ক: বিদেশি মুদ্রার সঞ্চয়ন বা রিজার্ভের অন্যতম প্রধান উৎস প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স প্রবাহে ফের উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে। গত বছরের শেষ মাস ডিসেম্বরের মতো নতুন বছরের প্রথম মাস জানুয়ারিতেও অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ এ সূচকে উল্লম্ফন দেখা যাচ্ছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক রোববার রেমিট্যান্স প্রবাহের সাপ্তাহিক যে তথ্য প্রকাশ করেছে, তাতে দেখা যায়, চলতি জানুয়ারি মাসের প্রথম ২০ দিনে (১ থেকে ২০ জানুয়ারি) ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমে ১৩১ কোটি ৫২ লাখ ৫০ হাজার (১.৩১ বিলিয়ন) ডলার পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। প্রতিদিন গড়ে এসেছে ৬ কোটি ৫৮ লাখ ডলার। রেমিট্যান্সে প্রতি ডলারের জন্য ১০৭ টাকা দিচ্ছে ব্যাংকগুলো। এ হিসাবে এই ২০ দিনে মোট ১৪ হাজার কোটি টাকা দেশে পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা।

সব মিলিয়ে চলতি অর্থবছরের ছয় মাস ২০ দিনে (২০২২ সালের ১ জুলাই থেকে চলতি জানুয়ারি মাসের ২০ তারিখ পর্যন্ত) ১ হাজার ১৮০ কোটি ৮৫ লাখ (১১.৮১ বিলিয়ন) ডলার পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা।

২০২২ সালের ডিসেম্বরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থানকারী প্রবাসীরা ১৭০ কোটি (১.৭০ বিলিয়ন) ডলার দেশে পাঠিয়েছিলেন, যা ছিল চার মাসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। সেপ্টেম্বরে এসেছিল ১৫৪ কোটি ডলার। অক্টোবর ও নভেম্বরে এসেছিল যথাক্রমে ১৫২ কোটি ৫৫ লাখ ও ১৫৯ কোটি ৫২ লাখ ডলার। হিসাব করে দেখা যায়, এই চার মাসে প্রতিদিন গড়ে ৬ কোটি ডলারের কম রেমিট্যান্স দেশে এসেছে। চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রথম দুই মাস জুলাই ও আগস্টে অবশ্য ২০০ কোটি (২ বিলিয়ন) ডলারের বেশি রেমিট্যান্স এসেছিল।

নতুন বছরের প্রথম মাসের ২০ দিনে যে হারে রেমিট্যান্স এসেছে, মাসের বাকি ১১ দিনে সেই হারে এলে জানুয়ারিতে রেমিট্যান্সের পরিমাণ জুলাই ও আগস্ট মাসের মতো ২ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যাবে বলে আশা করছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তারা। মার্চের শেষের দিকে রমজান মাস শুরু হবে। রোজা এবং ঈদকে সামনে রেখে রেমিট্যান্স প্রবাহ আরও বাড়বে বলে মনে করছেন তারা।

এই ২০ দিনে রাষ্ট্রায়ত্ত ছয় বাণিজ্যিক ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ১৭ কোটি ৫১ লাখ ৪০ হাজার ডলার। বিশেষায়িত কৃষি ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ৩ কোটি ৫১ লাখ ডলার। ৪২টি বেসরকারি ব্যাংকের মাধ্যমে প্রবাসীরা পাঠিয়েছেন ১১০ কোটি ডলার। আর ৯টি বেসরকারি ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ৫০ কোটি ৭০ লাখ ডলার।

পোস্টটি শেয়ার করুন